ঢাকা, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১, ১৪ জিলহজ ১৪৪৫

তীরে এসে তরী ডুবল বাংলাদেশের

প্রকাশনার সময়: ১১ জুন ২০২৪, ০০:১০ | আপডেট: ১১ জুন ২০২৪, ০০:২৫

চলতি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে মাঠে নামে বাংলাদেশ। গুরুত্বপূর্ণ এই ম্যাচে আগে ব্যাট করে টাইগারদের ১১৪ রানের সহজ লক্ষ্য দেয় প্রোটিয়ারা। সেই লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শেষ দিকে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ২৭ বলে ২০ রান করে আউট হলে ৪ রানের হার নিয়ে মাঠ ছাড়ে বাংলাদেশ।

সোমবার (১০ জুন) আগে ব্যাট করে বাংলাদেশকে ১১৪ রানের সহজ লক্ষ্য দেয় দক্ষিণ আফ্রিকা। জবাব দিতে নেমে নির্ধারিত ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ১০৯ রান তুলতে পারে টাইগাররা। এতে ৪ রানের হার নিয়ে মাঠ ছাড়ে বাংলাদেশ।

সহজ লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শুরুটা ভালো হয়নি বাংলাদেশের। ৯ বলে ৯ রান করে দ্বিতীয় ওভারে আউট হন ওপেনার তানজিদ হাসান তামিম। এদিন ইনিংস বড় করতে পারেননি লিটন দাসও। ১৩ বলে ৯ রান করেন তিনি। এরপরে চারে ব্যাট করতে এসে সুবিধা করতে পারেননি সাকিবও। ৪ বলে ৩ রান করে ফেরেন দেশসেরা এই ক্রিকেটার। ২৩ বলে ১৪ রান করে তাকে সঙ্গ দেন শান্ত। চার উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে টাইগাররা

এরপর দলের হাল ধরেন তাওহীদ হৃদয় এবং মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। দুজনের ব্যাটে ভর করে জয়ের পথে হাঁটতে থাকে বাংলাদেশ। ১৮তম ওভারে প্রথম বলে লেগ বিফোরের ফাঁদে পড়েন হৃদয়। ৩৪ বলে ৩৭ রান করেন তিনি। শেষ ওভারে বাংলাদেশের লক্ষ্য দাঁড়ায় ১১ রান। শেষ দিকে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ২৭ বলে ২০ রান করে আউট হলে ৪ রানের হার নিয়ে মাঠ ছাড়ে বাংলাদেশ। নির্ধারিত ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ১০৯ রান তুলতে পারে টাইগাররা।

দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে বল হাতে সর্বোচ্চ তিন উইকেট শিকার করেন কেশব মাহরাজ। কাগিসো রাবাদা এবং এনরিখ নরকিয়া ‍দুটি করে, এক উইকেট নেন ব্যার্টম্যান।

এর আগে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে প্রোটিয়ারা। দলীয় ২৩ রানে ৪ উইকেট হারায় দলটি। ইনিংসের প্রথম ওভারে রেজা হেনড্রিক্সকে সাজঘরে ফেরান তানজিম সাকিব। এক ওভার পরে আরেক ওপেনার কুইনটন ডি কককে বোল্ড করেন এই তরুণ পেসার। এরপরে প্রোটিয়াদের শিবিরে পরের আঘাত হানেন তাসকিন আহমেদ। ৮ বলে ৪ রান করা মারক্রামের স্ট্যাম্প উপড়ে ফেলেন এই টাইগার পেসার।

নিজের তৃতীয় ওভারে ক্রিস্টান স্টাবসকে আউটকে প্রোটিয়াদের ব্যাটিং বিপর্যয়ে ফেলেন তানজিম সাকিব। ২৩ রানে ৪ রান উইকেট হারায় তারা। এরপর দলের হাল ধরেন ডেভিড মিলার এবং হেইনরিচ ক্লাসেন। দুজনের ব্যাটে ভর করে শুরু ধাক্কা সামলে ওঠে দক্ষিণ আফ্রিকা। পিচে থিতু হয়েই ছড়ি ঘোরাতে থাকেন ক্লাসেন। ১৮তম ওভারে এই ডান হাতি ব্যাটারকে বোল্ড করে বাংলাদেশকে খেলায় ফেরান তাসকিন।

৪৪ বলে ৪৬ রান করেন ক্লাসেন। পরের ওভারে মিলারকে ফেরান লেগ স্পিনার রিশাদ হোসেন। ৩৮ বলে ২৮ রান করে এই বাঁহাতি ব্যাটার। ২০তম ওভারে মাত্র ৪ রান দেন মোস্তাফিজুর রহমান। এতে ৬ উইকেট হারিয়ে ১১৩ রান তুলতে পারে দক্ষিণ আফ্রিকা।

বাংলাদেশের হয়ে বল হাতে সর্বোচ্চ তিন উইকেট শিকার করেন তানজিম হাসান সাকিব। তাসকিন আহমেদ দুটি এবং রিশাদ হোসেন একটি করে উইকেট নিয়েছেন।

নয়া শতাব্দী/এসআর

নয়া শতাব্দী ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

মন্তব্য করুন

এ সম্পর্কিত আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

আমার এলাকার সংবাদ