ঢাকা, মঙ্গলবার, ৫ মার্চ ২০২৪, ২১ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৩ শাবান ১৪৪৫

ইসরা ও মিরাজ

প্রকাশনার সময়: ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ০০:০০ | আপডেট: ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১২:৫৮

ইসরা: আসরা শব্দটি আরবি ও এর উৎপত্তি ইসরা থেকে। অভিধানে অর্থ হলো, রাতে নিয়ে যাওয়া, রাতে ভ্রমণ করা, রাতে চলা ইত্যাদি। ‘সারিয়াহ’ রাতের বৃষ্টি। এরপর ‘লাইলান’ নাকেরাহ যোগ করে স্পষ্ট বুঝানো হয়েছে। সম্পূর্ণ রাতে নয়, বরং রাতের কিছু অংশে। ইংরেজিতে বলা হয়, Rotation, Travel, Journey at night ইত্যাদি।

আসরা এর ব্যবহার পবিত্র কোরআনের সুরা বনী ইসরাঈলসহ আরও বহু জায়গায় পাওয়া যায়। ‘মেহমান ফেরেশতাগণ বলল, হে লূত (আ.)! আমরা তোমার প্রভুর পক্ষ হতে প্রেরিত ফেরেশতা। এরা কখনো তোমার দিকে পৌঁছাতে পারবে না। অতএব তুমি কিছুটা রাত থাকতে থাকতে নিজের লোকজন নিয়ে বাইরে চলে যাও।’ (সুরা হূদ: ৮১)

‘আমি মুসার প্রতি এই মর্মে ওহী করলাম যে, আমার বান্দাদেরকে নিয়ে রাতের মধ্যেই চলে যাও।’ (সুরা ত্বহা: ৭৭)

‘আমি মুসাকে আদেশ করলাম যে, আমার বান্দাদেরকে নিয়ে রাত্রিযোগে বের হয়ে যাও, নিশ্চয় তোমাদের পশ্চাদ্ধাবন করা হবে।’ (সুরা শুআরা: ৫২)

‘তাহলে তুমি আমার বান্দাদেরকে নিয়ে রাতবেলায় বের হয়ে পড়ো। নিশ্চয় তোমাদের পশ্চাদ্ধাবন করা হবে।’ (সুরা দোখান: ২৩)

‘অতএব আপনি শেষরাতে পরিবারের সকলকে নিয়ে চলে যান এবং আপনি তাদের পিছে পিছে চলবেন।’ (সুরা হিজর: ৬৫) পরিভাষায়, মসজিদে হারাম থেকে মসজিদে আকসা পর্যন্ত সফরকে (ভ্রমণকে) ইসরা বলা হয়।

মিরাজ: মিরাজ শব্দটিও আরবি। এটি ‘করণ কারক’। যার দ্বারা আরোহণ করা হয়। এটা উরজুন থেকে এসেছে। অভিধানে অর্থ হলো, সিঁড়ি, সোপান, ধাপ, ঊর্ধ্বগমন ইত্যাদি। কামূসুল ফিকহ প্রণেতাও এ অর্থ করেছেন। ইংরেজিতে বলা হয়, Ascension, Flight of steps, Lader, Rung ইত্যাদি। মিরাজ শব্দটি ‘ইসমে আলার’ সিগাহ। অর্থ, উপরের দিকে ওঠার যন্ত্র (মাধ্যম)। সিঁড়ি যেহেতু উপরের দিকে ওঠার মাধ্যম তাই সিঁড়িকে মিরাজ বলে।

শরয়ী অর্থে বায়তুল মুকাদ্দাস থেকে যে অলৌকিক সিঁড়ির মাধ্যমে রাসুল (সা.) কে সাত আকাশের উপরে আরশের নিকটে আল্লাহর সান্নিধ্যে নিয়ে যাওয়া হয় সে সিঁড়িকে মিরাজ বলা হয়। পরিভাষায়, মসজিদে আকসা থেকে সাত আকাশ, সিদরাতুল মুনতাহা ইত্যাদি ভ্রমণকে মিরাজ বলা হয়। মহান আল্লাহর নির্দেশে মহানবী (সা.) মানব জ্ঞানের সীমা পেরিয়ে ঊর্ধ্বজগতে আরোহণ করে, আল্লাহর একান্ত সান্নিধ্য লাভ ও বাক্যালাপ করেন, তাই মিরাজ। এক রাতের কিছু অংশে রাসুল (সা.) মক্কা থেকে বায়তুল মুকাদ্দাস হয়ে সাত আকাশ পর্যন্ত ভ্রমণ করেন- এটিই মিরাজ। মক্কা থেকে জেরুজালেম পর্যন্ত দ্রুতগামী উটে যাওয়ার সময় ছিল একমাস এবং ফেরার সময়ও ছিল একমাস।

হিজরতের পূর্বে একটি বিশেষ রাতের শেষ প্রহরে বায়তুল্লাহ থেকে বায়তুল মুকাদ্দাস পর্যন্ত বুরাকে ভ্রমণ, সেখান থেকে অলৌকিক সিঁড়ির মাধ্যমে সাত আকাশ পেরিয়ে আল্লাহর সান্নিধ্যে গমন ও পুনরায় বায়তুল মুকাদ্দাস হয়ে বুরাকে আরোহণ করে প্রভাতের পূর্বেই মক্কায় নিজ গৃহে প্রত্যাবর্তনের ঘটনাকে মিরাজ বলে।

উল্লেখ্য, সুরা বনী-ইসরাঈলের প্রথম আয়াত দ্বারা ইসরার এবং সুরা নাজমের (১৩-১৮) আয়াত দ্বারা মিরাজের প্রমাণ পাওয়া যায়। আকাইদে নাসাফিতে আছে, মসজিদে হারাম থেকে মসজিদে আকসা পর্যন্ত রাসুলের (সা) ভ্রমণের নাম ইসরা যা আল্লাহর কিতাব দ্বারা অকাট্যভাবে প্রমাণিত। আর জমিন থেকে আকাশের দিকে ভ্রমণের নাম মিরাজ যা মাশহুর হাদিস দ্বারা প্রমাণিত।

নয়া শতাব্দী ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

মন্তব্য করুন

এ সম্পর্কিত আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

আমার এলাকার সংবাদ

x
Naya Shatabdi