ঢাকা, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১, ১৪ জিলহজ ১৪৪৫

খাজানায় মধ্যদুপুর-রসনা সফর

প্রকাশনার সময়: ২৯ মে ২০২৪, ১৭:৩৮ | আপডেট: ০২ জুন ২০২৪, ১৭:৪৭

ঘরের বাইরে সান্ধ বা রাত্রিকালীনভোজ মানেই মুখরোচক সব খাবারের সম্মিলন। সেখানে কব্জি ডুবিয়ে খাওয়া-দাওয়া আর হৈ-হুলোড়ে মেতে ওঠা। এই ট্রেন্ড থেকে বের হয়ে এসে গুটিকয়েক অথচ মুখরোচক নিরামিষ ও আমিষ পদ নিয়েও কটকটে মধ্যদুপুরে যে রসনা সফর করা যায় তারও আয়োজন রয়েছে এই নগরীতেই। তেমনি এক ভোজনালয় সিগনেচার বাই খাজানা। যেখানে দুপুরের আহার মানেই এক অনন্য রসনা সফর।

যেখানে খাবারে মেলবন্ধন ঘটানো হয় ঐতিহ্যের সঙ্গে উদ্ভাবনের। সিগনেচার বাই খাজানার মেন্যুতে আছে ইন্দো-চাইনিজ ও ওপার বাংলার আকর্ষণীয় সব পদ।

ভারতীয় রসনার সেই সব বৈচিত্র্যময় স্বাদের ভুবনে প্রতি মধ্যদুপুরে ভোজনরসিকদের স্বাগত জানাচ্ছে সিগনেচার বাই খাজানা। রাজধানীর গুলশানের প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত এই রেস্তোরাঁর সর্বশেষ উদ্ভাবন ‘এক্সপ্রেস লাঞ্চ মেন্যু’। এখন প্রতিদিন পরিবেশিত হচ্ছে দুপুর ১২টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত।

সিগনেচার বাই খাজানার প্রধান নির্বাহী অভিষেক সিনহা জানান, ‘নিরামিষভোজী হন বা আমিষভোষী হোন না কেন সব ধরনের স্বাদ পাবেন মন মাতানো। নানা উপকরণ অনন্য স্বাদে-গুণে অতুলনীয়। এখানকার প্রতি পদ মানেই আসল উপকরণের মহাযজ্ঞ। মধ্যাহ্নভোজকে সাশ্রয়ী অথচ উপভোগ্য করতেই হয়েছে মান ও মূল্যমানের মেলবন্ধন। অন্যান্য চার্জ বাদে মাত্র ৪৯৯ টাকায় উপভোগ করা যাবে সিগনেচার বাই খাজানার নতুন সংযোজন এই লাঞ্চ। সঙ্গে আছে টেক অ্যাওয়ের সুবিধাও। যে সব পদ থাকছে মধ্যাহ্নভোজ মেন্যুতে।

নিরামিষভোজীদের জন্য রয়েছে আলু তন্দুরি, পনির কড়াই, ডাল মাখনি, রুটি ও সাদা ভাত। আমিষ পদের মধ্যে রয়েছে ভাট্টি মুর্গ, বাটার চিকেন, ডাল মাখনি, রুটি ও সাদা ভাত। ইন্দো-চাইনিজের মধ্যে রয়েছে স্প্রিং রোল, চিলি চিকেন, চাইনিজ ভেজিটেবল ও হাক্কা ফ্রায়েড রাইস। ওপার বাংলার পদের মধ্যে মিলবে ফিশ ফ্রাই, ডাকবাংলো মুরগির ঝোল, ছোলার ডাল, বাসন্তী পোলাও ও লুচি।

এ সব পদ ছাড়াও মিলবে শেফের টেস্টিং মেন্যু। সিগনেচার বাই খাজানায় রসনাবিলাসের পরিপূর্ণ অভিজ্ঞতা নিতে হলে চেখে দেখতেই হবে তাদের নতুন আয়োজন থ্রি-কোর্স টেস্টিং মেন্যু। সম্প্রতি এই মাস্টারপিস লঞ্চ করা হয়েছে। এটা সাজানো হয়েছে সিগনেচার বাই খাজানার অভিজ্ঞ শেফের তত্ত¡াবধানে। নতুন এই মেন্যু দেবে অনবদ্য ভোজন-অভিজ্ঞতা। অত্যন্ত সতর্কতার সঙ্গে শেফের একান্ত পছন্দে নির্বাচিত স্বাদ ও টেক্সচারের সম্মিলনে প্রতীয়মান হয় এই রেস্তোরাঁর রন্ধনসৌকর্য।

সিগনেচার বাই খাজার প্রধান নির্বাহী অভিষেক সিনহা জানান, ‘রসনার রোমাঞ্চ উপভোগ করতে চাইলে অনন্য সব স্বাদ উপভোগ করতেই হবে; যেখানে প্রতিটি পদ সৃজিত হয়েছে আবেগ আর অভিজ্ঞতার দারুণ মিশেলে। তিন কোর্সের এই টেস্টিং মেন্যুর প্রতিটি পদ আস্বাদনে মিলবে সিগনেচার বাই খাজানার দক্ষতার স্বাক্ষর। যেমন নিরামিষ পদের অ্যাপেটাইজারের মিলবে রয়্যাল হারা ভারা, ঐতিহ্যবাহী পনির টিক্কা ও আলু তন্দুরি।

মেইন কোর্সের মধ্যে আছে কুইন্স কারি (পনির মাখনি), ভুট্টা পালং ও ডাল মাখনি। এ সব মুখরোচক পদের পাশাপাশি মিলবে বিভিন্ন পাউরুটি, জিরা রাইস ও পাপড় এবং মিষ্টান্ন গুলাব জামুন।

আমিষ পদ অ্যাপেটাইজারে রয়েছে চিকেন টিক্কা, মাহি টিক্কা, মাটন শিক কাবাব, মেইন কোর্সে থাকবে কিংস কারি (বাটার চিকেন), লাল মাংস ও ডাল মাখনি। থাকবে হরেক রকম পাউরুটি, জিরা রাইস ও পাপড়। শেষ রসনা হিসেবে রয়েছে গুলাব জামুন। অন্যান্য চার্জ ছাড়া নিরামিষ কোর্সের জন্য প্রতিজনে পড়বে ১ হাজার ২৯৯ টাকা আর আমিষ কোর্সের জন্য পড়বে ১ হাজার ৪৯৯ টাকা।

সিগনেচার বাই খাজানার ঠিকানা: ষষ্ঠতলা, আরএম সেন্টার, ১০১ গুলশান অ্যাভিনিউ, ঢাকা। রিজারভেশনের জন্য ফোন করা যেতে পারে +৮৮০১৬৭৮২২২০৫০ নম্বরে।

নয়া শতাব্দী/এসআর

নয়া শতাব্দী ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

মন্তব্য করুন

এ সম্পর্কিত আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

আমার এলাকার সংবাদ