ঢাকা, মঙ্গলবার, ৫ মার্চ ২০২৪, ২১ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৩ শাবান ১৪৪৫

ঝামেলা এড়িয়ে ব্রেক আপ করার উপায়

প্রকাশনার সময়: ০১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৩:৩৩

সম্পর্ক শেষ করা কখনোই সহজ নয়। বিশেষ করে যখন একটি সম্পর্কে অনেকদিনের অনেক স্মৃতি জমা হয়। কিন্তু সময় অদ্ভুত। কখনো কখনো আপনার নিজের কাছেই নিজেকে অচেনা মনে হবে। একটা সময় যাকে ছাড়া জীবন চলবেই না বলে মনে হয়েছিল, সেই তাকেই হয়তো আপনার আর সহ্য হচ্ছে না! এমন অবস্থায় সম্পর্ক আর এগিয়ে নিয়ে যেতে চাইছেন না হয়তো। কারণ আপনি সেই ছন্দটাই হারিয়ে ফেলেছেন।

আপনি মনে মনে চাইছেন ব্রেকআপ হোক, কিন্তু আপনার সঙ্গী চাচ্ছে না, তখন কী করবেন? যেহেতু এতদিনের একটি সম্পর্ক। নানা সুখকর অভিজ্ঞতাও হয়তো আছে এই সম্পর্কে।

সুতরাং ঝগড়াঝাটি করে আলাদা হওয়ার চেয়ে হাসিমুখে বিদায় নেওয়াই ভালো। যদিও এই বিষয় সবচেয়ে চ্যালেঞ্জিং। কারণ আপনি চাইলেও সে চাচ্ছে না আপনাকে ছাড়তে।

আরেকজন মানুষের ভালোবাসা, ভয়, টান, আকাঙ্ক্ষা, স্বপ্ন অনেককিছুই জড়িয়ে আছে এখানে। কিন্তু আপনার মন যদি আর কোনোভাবেই সায় না দেয়, তাহলে সেই মানুষকে অযথা মিথ্যার মধ্যে রাখাও ঠিক হবে না। সত্যিটাই তাকে বলতে হবে, তবে সবচেয়ে সুন্দর উপায়ে।

স্থির হয়ে বসুন এবং কেন আপনি বিচ্ছেদের দিকে যাচ্ছেন তা চিন্তা করুন। এটি জানা আপনাকে আরও ভালোভাবে বিষয়টি বুঝতে সাহায্য করবে। সেইেঙ্গে বিচ্ছেদের কারণগুলো নিয়ে কাজ করা যেতে পারে কি না তাও ভাবতে পারবেন। কারণটি বোঝার জন্য নিজের সঙ্গে বা ঘনিষ্ঠ বন্ধুর সঙ্গে আলোচনা করা গুরুত্বপূর্ণ।

এটা কি শুধু রাগের কারণে, নাকি আপনি সত্যিকার অর্থে এই সম্পর্ক শেষ করতে চান? অত্যন্ত সততার সঙ্গে এর উত্তর দিন এবং সেই অনুযায়ী কাজ করুন।

এটি চ্যালেঞ্জিং কিন্তু গুরুত্বপূর্ণ অংশ। আপনাকে তার সঙ্গে সরাসরি কথা বলতে হবে যে আপনি এই সম্পর্কে খুশি নন এবং এটি আপনার পক্ষে চালিয়ে যাওয়াও হচ্ছে না। তবে আপনাকে কয়েকটি বিষয় মাথায় রাখতে হবে এবং কিছু ভুল এড়াতে হবে।

কথা বলার সময় ব্রেকআপ সম্পর্কে দৃঢ় থাকুন এবং আপনি কেন এটি শেষ করতে চান তা পরিষ্কার করুন। দোষারোপ করবেন না বা কটু ভাষাও ব্যবহার করবেন না। সম্পর্কটি চালিয়ে নিতে না পারার জন্য নিজের ব্যর্থতাকেও স্বীকার করুন।

নিজের কথা বলা হয়ে যাওয়ার পরে আপনার প্রাক্তন হতে যাওয়া মানুষটিকেও বলার জন্য সময় দিন। কেবল স্বার্থপরের মতো নিজের কথাগুলো বলেই চলে আসবেন না। আপনি যতটা বলেছেন, তার চেয়েও বেশি বলার জন্য তাকে সময় দিন। কারণ সম্ভবত তার হৃদয়টা ভাঙতে বসেছে। এক্ষেত্রে সে উত্তেজিত বা রাগন্বিত হলেও নিজেকে সামলে নিন। তার কথা মনোযোগ দিয়ে শুনুন।

যেহেতু আপনি সম্পর্কটি শেষ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন, তাই তাকে শেষবারের মতো কথা বলার সুযোগ দিন। সবচেয়ে ভালো হয় ‘বিদায়’ শব্দটি তার মুখ থেকেই শুনতে পেলে। এতে পরবর্তীতে আপনার নিজেকে কিছুটা কম অপরাধী বলে মনে হতে পারে। অপরপক্ষকে কথা বলতে দেওয়া বা তার কথা মনোযোগ দিয়ে শোনা ভালো অভ্যাস। এতে আপনি আপনার পরবর্তী সম্পর্কের ক্ষেত্রে হয়তো সুখি হতে পারবেন।

নয়া শতাব্দী/আরজে

নয়া শতাব্দী ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

মন্তব্য করুন

এ সম্পর্কিত আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

আমার এলাকার সংবাদ

x
Naya Shatabdi