রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিলেন শেহবাজ শরিফ

প্রকাশনার সময়: ০৪ মার্চ ২০২৪, ২১:০৭

পাকিস্তানের ২৪তম প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিলেন মুসলিম লীগ-নওয়াজের (পিএমএল-এন) প্রধান শেহবাজ শরিফ। সোমবার (৪ মার্চ) ইসলামাবাদের প্রেসিডেন্ট হাউজে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেন তিনি।

এসময় উপস্থিত ছিলেন প্রেসিডেন্ট ডা. আরিফ আলভি সেনাপ্রধান (সিওএএস) অসীম মুনিরসহ বেশ কয়েকজন বিশিষ্ট ব্যক্তি প্রধানমন্ত্রীর।

পাকিস্তান মুসলিম লীগ-নওয়াজ (পিএমএল-এন), পাকিস্তান পিপলস পার্টি (পিপিপি), মুতাহিদ্দা কওমি মুভমেন্ট-পাকিস্তান (এমকিউএম-পি), এবং ইস্তেহকাম-ই-পাকিস্তান পার্টি (আইপিপি) এর মতো দেশের মূলধারার রাজনৈতিক দলগুলোর নেতারা শপথ অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন।

নেতাদের মধ্যে পিএমএল-এন সুপ্রিমো নওয়াজ শরিফ, পিপিপির কো-চেয়ারম্যান আসিফ আলী জারদারি এবং পিপিপি চেয়ারম্যান বিলাওয়াল ভুট্টো-জারদারি উপস্থিত ছিলেন। এ ছাড়া পাঞ্জাব, সিন্ধু এবং বেলুচিস্তানের মুখ্যমন্ত্রী- মরিয়ম নওয়াজ, মুরাদ আলি শাহ এবং সরফরাজ বুগতিও অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রদূত ও কূটনীতিকরা উপস্থিত ছিলেন। শপথগ্রহণের পর প্রধানমন্ত্রীকে গার্ড অব অনার প্রদান করা হয়।

শেহবাজ রোববার (৩ মার্চ) প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নির্বাচিত হন। পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) সমর্থিত সুন্নি ইত্তেহাদ কাউন্সিলের (এসআইসি) প্রতিপক্ষ ওমর আইয়ুব খানের বিরুদ্ধে ২০১ ভোট পাওয়ার পর শেহবাজ শরিফ প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দ্বিতীয়বারের মতো জাতির সেবা করতে যাচ্ছেন।

নির্বাচনের আগেই অনেকটা নিশ্চিত হয়ে গিয়েছি শাহবাজই হচ্ছেন পাকিস্তানের পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী। নির্বাচনে নিজের দল পিএমএল-এনের পাশাপাশি পিপিপি, মুত্তাহিদা কওমি মুভমেন্ট-পাকিস্তান (এমকিউএম-পি), পাকিস্তান মুসলিম লীগ-কায়েদ (পিএমএল-কিউ), বেলুচিস্তান আওয়ামী পার্টি (বিএপি), পাকিস্তান মুসলিম লীগ-জিয়া (পিএমএল-জেড), ইস্তেহকাম-ই-পাকিস্তান (আইপিপি) ও ন্যাশনাল পার্টির (এনপি) সমর্থন নিশ্চিত ছিল শাহবাজের। এই সাত দলের জোটে মোট আসন সংখ্যা ২০৫টি।

নয়া শতাব্দী/এসআর

নয়া শতাব্দী ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

মন্তব্য করুন

এ সম্পর্কিত আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

আমার এলাকার সংবাদ

x
Naya Shatabdi