ঢাকা, মঙ্গলবার, ৫ মার্চ ২০২৪, ২১ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৩ শাবান ১৪৪৫

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত ৮ ভারতীয়কে ছেড়ে দিলো কাতার

প্রকাশনার সময়: ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৫:৫২

ইসরায়েলের হয়ে গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগে আট ভারতীয় সাবেক নাবিককে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছিল কাতার। পরে দুই দেশের সরকারের মধ্যে দেন দরবারের ফলে সেই আটজনের দণ্ড মওকুফ করে ভারত ফেরত পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। সেই সিদ্ধান্ত অনুসারে এরই মধ্যে আট ভারতীয়কে মুক্তি দিয়েছে কাতার। সাতজন এরই মধ্যে দেশে ফিরেছেন। প্রায় ১৮ মাস কারাভোগ শেষে মুক্তি পেয়েছেন এই ভারতীয়রা।

এক প্রতিবেদনে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি জানিয়েছে, মুক্তি পাওয়া আটজনকে স্বাগত জানিয়েছে ভারত সরকার। দাহরা গ্লোবাল কোম্পানিতে কাজ করা এই আট ভারতীয় নৌবাহিনী কর্মকর্তাকে আটক করেছিল কাতার। ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় কাতারের আমিরকে তাদের মুক্তি দেওয়ার জন্য কৃতজ্ঞতা জানিয়েছে।

মুক্তি পাওয়া আট সাবেক ভারতীয় নৌ-সেনা হলেন- ক্যাপ্টেন নভতেজ সিং গিল, ক্যাপ্টেন বীরেন্দ্র কুমার বার্মা, ক্যাপ্টেন সৌরভ বাশিস্ট, কমান্ডার অমিত নাগপাল, কমান্ডার পূর্ণেন্দু তিওয়ারি, কমান্ডার সুগুনাকার পাকালা, নাবিক রাগেশ ও কমান্ডার সঞ্জীব গুপ্তা।

কাতারের কারাগার থেকে ছাড়া পেয়ে দেশে আসার পর নৌবাহিনীর সাবেক এসব কর্মকর্তারা ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

তাদের একজন বলেন, আমরা খুব খুশি যে নিরাপদে দেশে ফিরে আসতে পেরেছি। এরজন্য অবশ্যই প্রধানমন্ত্রী মোদিকে ধন্যবাদ জানাতে চাই, কারণ শুধুমাত্র তার ব্যক্তিগত হস্তক্ষেপের কারণেই এটি সম্ভব হয়েছে।

এর আগে, গত বছরের ২৬ অক্টোবর কাতারের আদালত এই ৮ ভারতীয় নাগরিককে মৃত্যুদণ্ড দেয়। তার আগে থেকেই ইসরায়েলের হয়ে গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগে এক বছরেরও বেশি সময় ধরে তারা কাতারের কারাগারে বন্দী ছিলেন।

কাতার ভারতীয় নাবিকদের মৃত্যুদণ্ড দেওয়ার পর প্রতিক্রিয়ায় ভারত সরকার বলেছিল, মৃত্যুদণ্ডের রায়ে আমরা গভীরভাবে মর্মাহত এবং বিস্তারিত রায়ের কপি হাতে পাওয়ার অপেক্ষায় রয়েছি। আমরা সামরিক কর্মকর্তাদের পরিবারের সদস্য ও আইন পরামর্শক দলের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছি এবং আমরা সমস্ত আইনি বিকল্প খুঁজে দেখছি।

ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সে সময় আরও জানিয়েছিল, আমরা এই মামলাটিকে অত্যন্ত গুরুত্বের সঙ্গে দেখছি এবং নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করছি। আমরা সব ধরনের কনস্যুলার ও আইনি সহায়তা অব্যাহত রাখব। আমরা এ রায় নিয়ে কাতারের কর্তৃপক্ষের কাছেও যাব।

নয়াশতাব্দী/ডিএ/একে

নয়া শতাব্দী ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

মন্তব্য করুন

এ সম্পর্কিত আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

আমার এলাকার সংবাদ

x
Naya Shatabdi