ঢাকা, রোববার, ২৬ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ১৭ জিলকদ ১৪৪৫

বাবার আড়াই কোটি টাকার ঋণ নিয়ে মুখ খুললেন রাফসান

প্রকাশনার সময়: ১৫ মে ২০২৪, ১৬:৫৮

বাংলাদেশের জনপ্রিয় কনটেন্ট নির্মাতা রাফসান দ্য ছোট ভাই। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তার লাখ লাখ ফলোয়ার। তাকে চেনেন বা জানেন না এমন কোনো তরুণ-তরুণীকে খুঁজে পাওয়া দুষ্কর। এই সোশ্যাল ইনফ্লুয়েন্সারকে নিয়ে তেমন সমালোচনা না থাকলেও একটি গাড়ি কেনাকে কেন্দ্র করে সমালোচকদের নজরে পড়েন জনপ্রিয় এই কন্টেন্ট ক্রিয়েটর।

সম্প্রতি মা-বাবাকে একটি অডি গাড়ি উপহার দেন মডেল রাফসান দ্য ছোট ভাই। আর বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে জানানোর পরই শুরু হয় পক্ষে-বিপক্ষে আলোচনা-সমালোচনা। এরই মধ্যে রাফসানের বাবার আড়াই কোটি টাকা ঋণ নেওয়ার তথ্যও সামনে চলে আসে।

কিন্তু সমালোচনার তো আর শেষ নেই, কেউ কেউ বলতে শুরু করেন রাফসান চাইলে গাড়ি না কিনে বাবার কোম্পানির নেওয়া ব্যাংকের ঋণ পরিশোধ করতে পারতেন। আবার কেউ কেউ এর বিপরীতেও কথা বলেন। চলতে থাকে পক্ষে-বিপক্ষে নানা আলোচনা।

তবে অনেকেই অপেক্ষায় ছিলেন বিষয়টি নিয়ে রাফসান কী ব্যাখ্যা দেন সেটি শোনার জন্য। মঙ্গলবার (১৪ মে) রাতে ফেসবুকে একটি ভিডিও পোস্ট করে ব্যাখ্যা দেন তিনি।

ভিডিওতে ঋণ নেওয়ার কথা স্বীকার করে রাফসান বলেন, ‘বিষয়টি এখন আদালতে বিচারাধীন। সেখান থেকে নির্দেশনা না দেওয়া পর্যন্ত ঋণ পরিশোধ করব কীভাবে? কারণ আদালত এখনও নির্ধারণ করে দেয়নি কত টাকা পরিশোধ করতে হবে।’

তিনি বলেন, ‘আপনি আমাকে বলছেন আমি একজন সন্তান হয়ে কেন ঋণ পরিশোধ করছি না। আমি বলতে চাই আমার ভাই ও আমি যথেষ্ট ভালো সন্তান। আমি ও আমার ভাই মিলে অবশ্যই ঋণ পরিশোধ করতে পারি। কিন্তু আদালত তো বলে নাই কত টাকা পরিশোধ করতে হবে, তাহলে আপনি বলে দেন কত টাকা পরিশোধ করব?’

গাড়ির দাম নিয়ে এই কন্টেন্ট ক্রিয়েটর বলেন, ‘আমার বাবাকে গাড়িটি কিনে দিয়েছি সেটার দাম নাকি দুই কোটি টাকা। কিন্তু এই গাড়ির দাম দুই কোটি টাকার আশপাশেও না।’

ভিডিওর শুরুতে রাফসান বলেন, ‘আপনারা জানেন ব্যাংক থেকে ঋণ নিতে হলে কিছু জিনিস বন্দক রাখতে হয়। আমরা একটা জমি বন্দক রেখেছি, সেটার দাম যদি ১০ টাকা হয়, আমরা ঋণ নিয়েছি এক টাকা। তারা এই ঋণের পরিবর্তে আমাদের ১০ টাকার জিনিসটা নিতে চায়। তাই আমরা আদালতে গিয়েছি।’

ভুল তথ্য ছড়ানোয় আইনগত ব্যবস্থা নেবেন জানিয়ে তিনি বলেন, ‘যিনি মোরাল পুলিশিং করছেন তিনি ভুল তথ্য ছড়াচ্ছেন। আমি আমাদের আইনজীবীর সঙ্গে এ বিষয়ে কথা বলেছি। আমরা হাজার হাজার কোটি টাকা নিয়ে পালিয়ে যাইনি, আমরা দেশেই আছি।’

নয়াশতাব্দী/ডিএ

নয়া শতাব্দী ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

মন্তব্য করুন

এ সম্পর্কিত আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

আমার এলাকার সংবাদ