ঢাকা, মঙ্গলবার, ৫ মার্চ ২০২৪, ২১ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৩ শাবান ১৪৪৫

‘আমি রাক্ষস, গোগ্রাসে খাই’

প্রকাশনার সময়: ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৯:১৪

দুদিন বাদেই হাসপাতাল থেকে ছুটি পেলেন ‘মহাগুরু’ খ্যাত অভিনেতা ও রাজনীতিক মিঠুন চক্রবর্তী। শনিবার ব্রেইন স্ট্রোকে আক্রান্ত হয়ে কলকাতার এক বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি হন তিনি। আপতত সুস্থ ‘ডিস্কো ডান্সার’।

সোমবার (১২ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে নিজে হেঁটেই বের হলেন হাসপাতাল থেকে। উৎসুক ভক্তদের উদ্দেশ্যে হাত নেড়ে করলেন সৌজন্য বিনিময়ও।

হাসপাতাল থেকে বেরিয়ে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখিও হন এই তারকা। জানালেন, তার একমাত্র সমস্যার কারণ। অভিনেতার কথায়, অতিরিক্ত খাওয়ার জেরেই অসুস্থ হয়েছেন তিনি। খাওয়া-দাওয়া নিয়ন্ত্রণ করতে হবে। জানালেন স্পষ্ট করে।

সঙ্গে বিজেপিকে নিয়েও কথা বলেন মিঠুন। বললেন, দলের উত্থানের সময় এসেছে।

মহাগুরু বলেন, ‘কোনো সমস্যা নেই। সমস্যা কেবল খাওয়াতে। আমি গোগ্রাসে খাই…! যাদের ডায়াবেটিস রয়েছে, ভাববেন না মিষ্টি না খেলে কিছু হবে না। হবে। খাওয়া নিয়ন্ত্রণ করুন। আমার সমস্যা হয়েছে, বেশি খেয়েছি। আমি রাক্ষস! এই বকাও খেলাম।’

এখন একদম ফিট, স্পষ্ট জানান মিঠুন। খাদ্যাভ্যাসে বদল আনার চেষ্টা করবেন এখন থেকে, সেই শপথও নিলেন মহাগুরু।

এদিকে সুস্থ হতেই লোকসভা ভোটের চিন্তা মিঠুনের মাথায়। তবে সাফ জানালেন, তিনি প্রার্থী হবেন না। মিঠুন বলেন, ‘আমি প্রার্থী হলে বাকি ৪২টা কেন্দ্রের কী হবে’।

সঙ্গে এও বললেন, ‘বিজেপি করব। আমাদের রাজ্যের বাইরে অন্য রাজ্যে ডাকলে, তা-ও যাবো। বিজেপির উত্থানের সময় এসেছে।’

তৃণমূল বিধায়ক তথা অভিনেতা সোহম চক্রবর্তী প্রযোজিত ‘শাস্ত্রী’র শ্যুটিংয়েই কলকাতায় এসেছিলেন মিঠুন। মাঝপথে অসুস্থ হওয়ায় শ্যুটিং নিয়েও চিন্তিত এই অভিনেতা।

রোববার হাসপাতালের বিছানায় শুয়েই বিজেপির সুকান্ত মজুমদারকে বলেন, ‘কাল থেকে শ্যুটিং করতে পারলেই ভালো হতো’।

এদিকে সোমবার শুভেন্দুর সন্দেশখালি যাত্রা রুখে দিয়ে ফের বিজেপির চোখে ভিলেন রাজ্য-পুলিশ। মিঠুন সাফ বললেন, ‘শুভেন্দুকে আটকে কী হবে? ও ভেঙে বেরিয়ে যাবে। ও খুব শক্তিশালী নেতা। আটকে কোনো লাভ নেই।’

অভিনেতার মস্তিষ্কের ইস্কেমিক সেরিব্রোভাসকুলার অ্যাক্সিডেন্ট (স্ট্রোক) ধরা পড়ে শনিবার। ওইদিন সন্ধ্যায় হাসপাতালের তরফে বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়, অভিনেতাকে ডান, উপরের এবং নীচের অঙ্গগুলোতে দুর্বলতার অভিযোগ নিয়ে হাসপাতালে আনা হয়। বর্তমানে তিনি প্রয়োজনীয় চিকিৎসা নিচ্ছেন এবং চিকিৎসকদের একটি দলের পর্যবেক্ষণে রয়েছেন।

মৃণাল সেন পরিচালিত ‘মৃগয়া’ চলচ্চিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে কর্মজীবন শুরু করেন মিঠুন, যা তাকে শ্রেষ্ঠ অভিনেতা বিভাগে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার এনে দেয়। ‘ডিস্কো ডান্সার’, ‘অগ্নিপথ’, ‘ঘর এক মন্দির’, ‘জল্লাদ’, ‘পেয়ার ঝুকতা নেহি’ তার আরও কয়েকটি জনপ্রিয় সিনেমা।

একটা সময় তৃণমূল ঘনিষ্ঠ মিঠুন, ২০২১ সালের ৭ মার্চ কলকাতার ঐতিহাসিক ব্রিগেড প্যারেড গ্রাউন্ডে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর উপস্থিতিতে বিজেপিতে যোগ দেন। সূত্র- হিন্দুস্তান টাইমস।

নয়াশতাব্দী/এনএস

নয়া শতাব্দী ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

মন্তব্য করুন

এ সম্পর্কিত আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

আমার এলাকার সংবাদ

x
Naya Shatabdi