ঢাকা, রোববার, ২৬ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ১৭ জিলকদ ১৪৪৫

ভাতিজাদের সালামি দেয়ায় স্ত্রীর কোপে হাসপাতালে স্বামী

প্রকাশনার সময়: ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ১৬:৪৫

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় ভাতিজাদের ঈদের সালামি দেয়া নিয়ে ঝগড়ার এক পর্যায়ে স্ত্রীর দায়ের কোপে গুরুতর আহত হয়ে রংপুর মেডিকেল কলেজ (রমেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন স্বামী তাইজুল ইসলাম।

উপজেলার নওদাবাস ইউনিয়নের চৌপথি বটতলা গ্রামে ঘটনাটি ঘটেছে ঈদের দিন বৃহস্পতিবার (১১ এপ্রিল) সকালে। এ ঘটনায় স্বামী ও স্ত্রী উভয়েই থানায় অভিযোগ দিয়েছেন।

জানা গেছে, তাইজুল ইসলাম ঈদের দিন সকালে তার ভাতিজাদের ২০ টাকা করে ঈদ সালামি দিচ্ছিলেন। তবে স্ত্রী রাশেদা বেগম এতে অসম্মতি জানিয়ে ২০ টাকার পরিবর্তে ১০ টাকা করে দিতে বলেন। এনিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া ও হাতাহাতি হয়।

আহত তাইজুল ও তার পরিবারের দাবি, হাতাহাতির এক পর্যায়ে রাশেদা বেগম দা দিয়ে কোপ দেন স্বামী তাইজুল ইসলামকে। এতে তাইজুলের ঘাড়ের নিচে জখম হয়। গুরুতর আহত তাইজুলকে উদ্ধার করে স্বজনরা প্রথমে হাতীবান্ধা উপজেলা হাসপাতাল, পরে রমেক হাসপাতালে ভর্তি করায়। অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় শনিবার (১৩ এপ্রিল) সকালে চিকিৎসকরা তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেন।

তবে রাশেদা বেগম তার স্বামীকে দা দিয়ে আঘাত করার বিষয়কে মিথ্যা দাবি করে বলেন, আমার স্বামীই আমাকে দা দিয়ে কোপাতে আসেন। এ সময় আমি তাকে নিবৃত করার চেষ্টা করি। এতে দুজনের মধ্যে ধস্তাধস্তি হয়। একপর্যায়ে স্বামীর ঘাড়ে ধারালো দায়ের আঘাত লাগে।

এ বিষয়ে হাতীবান্ধা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি, তদন্ত) নির্মল চন্দ্র রায় জানান, ঈদের সালামি নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে বচসার ঘটনায় উভয় পক্ষই থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে। তদন্ত করে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

নয়াশতাব্দী/এনএস

নয়া শতাব্দী ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

মন্তব্য করুন

এ সম্পর্কিত আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

আমার এলাকার সংবাদ